খেলা

ভিভাসিয়াস মোহনবাগানের উদ্যোগে ‘ফ্যানস ফুটবল ফেস্ট ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল

সব খেলার সেরা বাঙালির তুমি ফুটবল।ফুটবল বাঙালিদের রক্তে মিশে আছে। আমাদের কাছে ফুটবলের কথা হলেই যে নামগুলোর কথা মনে পড়ে তা হলো মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল।

মোহনবাগান ফ্যান দের মিলিত প্রচেষ্টায় ফুটবলের উত্তাপকে শীতের হালকা অনুভূতির সাথে গায়ে মেখে উত্তর কলকাতা বুকে শোভাবাজারের বি কে পাল পার্কে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে মোহনবাগানের ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ৮টি ফ্যানস ক্লাবকে নিয়ে মোহনবাগান এরই আর এক ফ্যানস ক্লাব ভিভাসিয়াস মোহনবাগান আয়োজন করেছিল ‘ফ্যানস ফুটবল ফেস্ট ২০১৯’। যারা সারাবছর মোহনবাগান ক্লাবকে শুধু ভালোবেশে মাঠে গিয়ে উৎসাহ প্রদান করে তারাই আজ নিজেদের মধ্যে সৌধার্য্য মুলুক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে এই টুর্নামেন্ট কে সফল করে তোলে। অংশগ্রহণকারী দলগুলি হলো জীবনের রং সবুজ মেরুন, রক্তে আমার মোহনবাগান, স্বপ্নের উড়ান মোহনবাগান, আন্দুল মেরিনার্স, বালি সবুজ মেরুন ফ্যানস ক্লাব, মোহনবাগান জেনারেশন নেক্সট, পানিহাটি মেরিনার্স এবং আয়োজক টিম ভিভাসিয়াস মোহনবাগান।

যতই ফ্রেন্ডলি টুর্নামেন্ট হোক না কেনো, খেলার মান ও উত্তেজনায় দেখে একবার তা মনে হয়নি। প্রত্যেকটি ম্যাচই হয় টানটান উত্তেজনাপূর্ণ।ফাইনাল খেলাটি নির্ধারিত সময় পর্যন্ত খেলার ফলাফল ১-১ থাকার পর, ট্রাইবেকার ও খেলার নিস্পত্তি না হওয়ায় টসের মাধ্যমে জীবনের রং সবুজ মেরুনকে হারিয়ে এই টুর্নামেন্ট জিতে নেয় বালি সবুজ মেরুন ফ্যানস ক্লাব। টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ গোল দাতার পুরস্কার পায় বালি সবুজ মেরুনের রাহুল রায় ও বেস্ট গোলকিপার পুরস্কার লাভ করে জীবনের রং সবুজ মেরুনের শুভেন্দু ভৌমিক।

এই প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো কার্নিভাল এর রূপ নেয় বি কে পালের মাঠ। খেলার সাথে সাথে চলতে থাকে সবারই সবার সাথে আড্ডা, মজা।আসলে সবার হৃদয়ের রং টা তো এক “সবুজ মেরুন, “।সবাই এই রকম একটা দিনের জন্য বছরভর অপেক্ষা করে থাকে বলে জানিয়েছেন, আয়োজক ভিভাসিয়াস মোহনবাগানের কর্মকর্তারা।

 6,856 total views,  75 views today

Leave a Reply