দেশ

কমলালেবু বিক্রি করে স্কুল তৈরি করলেন বিক্রেতা।

পেশায় কমলা লেবু বিক্রেতা। রোজগার খুব সামান্যই। কিন্তু অদম্য ইচ্ছাশক্তি এলাকায় স্কুল প্রতিষ্টার। সেই ইচ্ছাশক্তির ওপর ভর করেই প্রত্যেকদিন একটু একটু করে টাকা জমিয়ে গ্রামে স্কুল তৈরি করে ফেলেছেন তিনি। কর্ণাটকের ৬৮ বছরের কমলা লেবু বিক্রেতা হারেকালা হাজাব্বা। কর্নাটকের ম্যাঙ্গালুরু শহরের কাছে নিউপাদাপু নামে একটি ছোট্ট গ্রামের বাসিন্দা হাজাব্বা। আর তাঁর এই অসাধরণ কাজের জন্য এবছর পদ্মশ্রী পাচ্ছেন তিনি। এই কাহিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই সকলের মন জয় করে নিয়েছেন হাজাব্বা।

জানা গিয়েছে, ২০০০ সালের আগে হারেকালা হাজাব্বার গ্রামে কোনও স্কুল ছিল না। নিজের সামান্য রোজগারের টাকা জমিয়ে জমিয়েই স্কুল খোলেন তিনি। এমনকি শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় এক সময়ে স্কুলের জন্য জমি কিনতে নিজের জমানো টাকার পাশাপাশি ঋণও নিয়েছিলেন স্বল্প আয়ের এই মানুষটি। ঋণ নিয়েই তিনি তৈরি করেছিলেন স্কুল।

ওই ফল বিক্রেতার দাবি,বিদেশি এক দম্পতির কাছে ফল বিক্রি করতে ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি তাঁর গ্রামে স্কুল প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি বলেন, ‘ওই দম্পতি আমার কাছে কমলার দাম জিজ্ঞেস করেছিল, কিন্তু তখন আমি তা বুঝতে পারিনি। তখন ওই দম্পতি চলে যায়। সেদিন আমার খুব খারাপ লেগেছিল। তাই সেদিন থেকেই তিনি সিদ্ধান্ত নেন শিক্ষার জন্য কিছু করতেই হবে। প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তিকে ভড় করে নিজের এলাকায় তিনি স্কুল প্রতিষ্টার উদ্যোগ নিয়েছেন।

 194 total views,  2 views today

Leave a Reply