September 22, 2020

নিউজিল্যান্ডের সাথে প্রথম একদিনের ম্যাচে হার দিয়ে শুরু করলো ভারত

নিউজিল্যান্ডের সাথে প্রথম একদিনের ম্যাচ হার দিয়ে শুরু করলো ভারত।
ওডিআই সিরিজে ‌নিউজিল্যান্ড টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। নিউজিল্যান্ড সফরের শুরুটা দারুণভাবে করে ছিল ভারত। ৫-০তে টি২০ সিরিজ জিতে ইতিহাসও তৈরি করেছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বে ভারত। ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে নিউজিল্যান্ডের মাটিতেই শুরু হয়ে গেল তিন ম্যাচের ওডিআই সিরিজ। প্রথম ওডিআইতে নিউজিল্যান্ডের কাছে চার উইকেটে হার দিয়ে শুরু করল।

দুই নবাগত ওপেনার প্রথম দিনই ব্যাট হাতে বড় কিছু করে দেখাতে পারলেন না। পৃথ্বী শ ২০ ও মায়াঙ্ক আগরওয়াল ৩২ রান করেই ফিরে গেলেন প্যাভেলিয়নে। এ দিনই সিনিয়র ভারতীয় ক্রিকেট দলের জার্সিতে একদিনের ক্রিকেটে অভিষেক হল দুই ওপেনারের।
দুই ওপেনার ফিরে গেলে ভারতীয় ইনিংসের হাল ধরেন অধিনায়ক বিরাট ও শ্রেয়াস আয়ার। বিরাট ৬৩ বলে ৫১ রানের ইনিংস খেলেন। একদিনের ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকা‌ন শ্রেয়াস আয়ার। ১০৭ বলে ১১টি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ১০৩ রান করেন তিনি। চার নম্বরের সমস্যা হয়তো এ বার মেটাতে চলেছেন তিনিই। এ দিন পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছিলেন লোকেশ রাহুল। সেখানেও তিনি তাঁর ফর্ম ধরে রাখলেন। ৮৮ রানে অপরাজিত থাকলেন। ৫০ ওভারে ৩৪৭-৪-এ থামল ভারত।

ভারতের রানের পাহাড়ের সামনে ততটাই লড়াই দিল নিউজিল্যান্ড। দুই ওপেনার মার্টিন গাপ্তিল ৩২ ও হেনরি নিকোলাস ৭৮ রান করে আউট হন। তিন নম্বরে নেমে টম ব্লান্ডেল ৯ রান করেই ফিরে যান। এর পর ঝোড়ো ব্যাটিং শুরু করেন রস টেলর। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত টম লাথামের। ৬৯ রানে আউট হন তিনি। ব্যাট করতে নেমে জিমি নিশাম ৯ রানে ফিরে যান প্যাভেলিয়নে। ১৭১-৩ উইকেট থেকে নিউজিল্যান্ডের চতুর্থ উইকেট পড়ে ৩০৯ রানে। এর পর একা লড়লেন টেলর। ৮৪ বলে ১০৯ রান করে অপরাজিত থাকলেন তিনি। ৪৮.১ ওভারে নিউজিল্যান্ড ৩৪৮-৬,চার উইকেটে জয় লাভ করে নিউজিল্যান্ড।

আমরা আসছি…….