,

চিরাচরিত ধান গম,পাট, আলু চাষের পরিবর্তে অধিক মুনাফা লাভের আশায় বিকল্প চাষ হিসেবে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় বাড়ছে ড্রাগন ফলের চাষ। মূলত একটা সময় পাশ্চাত্য দেশ মেক্সিকো, থাইল্যান্ড সহ অন্যান্য জায়গায় ড্রাগন ফলের চাষ হলেও এখন অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর ড্রাগণ ফলের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের সর্বত্র বাজারে।পাশাপাশি জেলায় উত্‍পন্ন ড্রাগন ফল পৌঁছে যাচ্ছে ভিন রাজ্যগুলিতেও। বর্তমানে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন, কুশমন্ডি, ও বংশিহারি, হরিরামপুর ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় সাফল্যের সাথে ড্রাগন ফলের চাষ করে চলেছেন কৃষকেরা।

দ: দিনাজপুর জেলার বংশিহারি ব্লকের ২নং ব্রজবল্লভপুর নওপাড়া গ্রামের ড্রাগন ফল চাষী বাবলু মাহাতো জানান”২০১৬ সাল থেকে ড্রাগন ফলের চাষ শুরু করেছি আমি,প্রথমে অল্প জায়গা নিয়ে চাষ শুরু করলেও পরবর্তীতে ১একর জমিতে ড্রাগন ফলের চাষ করি। বর্তমানে ১একর জমি থেকে বছরে ৮ লক্ষ টাকার ড্রাগন ফল বিক্রি করি। “নওপাড়া এলাকার ওপর এক ড্রাগন ফল চাষী চিতাম্বর চন্দ্র মাহাতো বলেন”লাভবান হয়েছি বলেই সফলতার সাথে বিগত ৫ বছর ধরে ড্রাগন ফল চাষ করছি আমরা, পাশাপাশি এই এলাকায় বহু চাষিরা এখন ড্রাগন ফল চাষ করেন।

 710 total views,  1 views today