রাজ্য

পাতিলেবুর দাম চার গুণ, বাজারে বিকোচ্ছে চিনা লেবু

ভাতের সঙ্গে এক টুকরো পাতি লেবু আর নুন ছাড়া অনেকেরই অনেকেরই চলে না। লেবু ছাড়া স্যালাডও বেমানান। সকালে ঘুম থেকে উঠে পাতি লেবুর শরবত খাওয়া অনেকেরই অভ্যাস। কিন্তু চাহিদা সত্ত্বেও পাতিলেবুর আকাল পড়েছে বাজারে। এ রাজ্যে পাতিলেবু সরবরাহ কম হওয়ায় তার দাম প্রায় চার গুণ বেড়ে গিয়েছে। কয়েকদিন আগেও যে লেবু পাওয়া যেত এক টাকা বা দু টাকায়। এখন ৪ থেকে ৫ টাকা দিলেও সেই লেবু পাওয়া যাচ্ছে না। পাইকারি ব্যবসায়ীরা অনেকেই পাতিলেবু তুলছেন না। তাদের দাবি ক্রেতাদের ৪-৫ টাকা দাম বললে তারা নিতে চাইছেন না। তাই লেবু এনে নষ্ট হচ্ছে। তবে হঠাৎ করে বাজারে পাতিলেবুর এই আকাল হল কেন? ব্যবসায়ীরা জানাচ্ছেন, এরাজ্যে মূলত তামিলনাড়ু থেকে পাতিলেবু সরবরাহ হয়। কিন্তু বর্তমানে সেই রাজ্য থেকে পাতিলেবু সরবরাহ কমে গিয়েছে। তার কারণ বৃষ্টি না হয় তামিলনাড়ুতে পাতি লেবুর চাষও কম হয়েছে। যেটুকু চাষ হয়েছে তার অধিকাংশটাই চড়া দামে আরবে রপ্তানি করা হচ্ছে। হলে এ রাজ্যে সরবরাহ অনেকটাই কমে গিয়েছে। কয়েকদিন আগে পর্যন্ত যে লেবু ১০০টির দাম ছিল ১০০ টাকা বা ২০০ টাকা। এখন তার দাম ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। অন্যদিকে পাতিলেবুর পরিবর্তে বাজারে এসেছে চিনা লেবু। পাতিলেবুর থেকে আকারে বড় এবং রসও বেশি। কিন্তু পাতি লেবুর মতো স্বাদ না হয় চিনা লেবু এখনো সেই মত বাজার করতে পারেনি। এদিকে এ রাজ্যে কাজ জিও গন্ধরাজ লেবুর চাষও অনেকটাই কমে গেছে। তাই বর্তমানে বাজার ধরার চেষ্টায় রয়েছে চীনা লেবু। এ রাজ্যে নতুন এই লেবুর চাষ বেড়েছে।

6,647 total views, 5 views today

Leave a Reply

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: