জেলা রাজ্য

লকডাউন জারি রাখতে গিয়ে ‘আক্রান্ত’ খানাকুল পুলিশ, গ্রেপ্তার ৭।

শ্যামলেন্দু গোস্বামী :- সারা দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। সারা দেশ জুড়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে  কোথাও দেখা যাচ্ছে অযথা জমায়েত এড়াতে পুলিশ লাঠিচার্জ করছে, আবার কোথাও চলছে ধরপাকড়ও। রাজ্য পুলিশের ভূমিকাই যথেষ্ট সন্তুষ্ট রাজ্যবাসী। কিন্তু লকডাউন জারি রাখতে এবার পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ হুগলির খানাকুলে। এই ঘটনায় সাতজনকে গ্রেফতার করল খানাকুল থানার পুলিশ। 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃতদের নাম শেখ মহসিন, শেখ মুস্তাকিন, শেখ আজারুদ্দিন, শেখ সাহানাজ, শেখ সাইফুদ্দিন, শেখ আজিজ ও শেখ ইকলাস। জানা গেছে, খানাকুলের হিরাপুর এলাকায় বুধবার রাতে লকডাউন জারি রাখতে পুলিশের পক্ষ থেকে অভিযান চলছিল। সেই সময় ধৃতরা পুলিশের কাজে বাধা দিতে শুরু করে। এমনকি পুলিশকে তারা মারধর করে বলেও অভিযোগ। ঘটনাস্থল থেকেই পুলিশ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আক্রান্ত পুলিশ কর্মীদের চিকিৎসাও করানো হয়। সরকারি কাজে বাধা, পুলিশকে মারধর সহ একাধিক ধারায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে বলে খানাকুল পুলিশ সূত্রে খবর। 

স্থানীয় মানুষদের একাংশ বলছেন, এই থানার ওসি অনিল রাজ লকডাউন জারি রাখতে বদ্ধপরিকর। বিভিন্ন সময় তিনি নিজে পুলিশ নিয়ে লকডাউন জারি রাখতে আসরে নামছেন। এমনকি জমায়েত এড়াতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন নতুন ওসি। কিন্তু এদিন পুলিশকে অযথা যারা হেনস্থা করল,সেই দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তারা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার কলকাতায় এক পুলিশকে হেনস্থা করার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর রেশ কাটতে না কাটতেই এই রাজ্যেরই হুগলী জেলার খানাকুল থানার পুলিশকে এইভাবে হেনস্তার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

 2,636 total views,  3 views today

Leave a Reply