রাজ্য

করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নিল কলকাতা পুরসভা।

করোনা মোকাবিলায় নয়া সিদ্ধান্ত কলকাতা পুরসভার। ঘোষণা করা হয়েছে,করোনায় আক্রান্ত কোনও রোগীর মৃত্যু হলে ধাপায় দাহ ও পূর্ব কলকাতার বাগমারি কবরস্থানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

প্রসঙ্গত, করোনায় মৃত রোগীর দেহ বৈদ্যুতিক চুল্লিতে পোড়ালে আশেপাশের বাতাসে ছড়িয়ে পড়বে কালান্তক মারণ ভাইরাস, এই যুক্তিতে ভর দিয়ে রাজ্যে করোনায় মৃত প্রথম রোগীর শেষকৃত্য নিমতলা শ্মশানঘাটে করতে বাধা দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে কলকাতা পুলিশ ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ঘন্টা তিনেক বাদে দাহ হলেও পরবর্তীতে ফের এমন অশান্তি রুখতে বড়মাপের সিদ্ধান্ত নিল কলকাতা পুরসভা।

এ প্রসঙ্গে কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘ইলেকট্রিক চুল্লিতে দেহ দাহ হলে করোনা কেন, অন্য কোনও জীবাণু থাকে না। আবার মাটির নিচে কোনও দেহ চলে গেলে সেখানেও সম্পূর্ণ নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন পুরসভা মানছে।’ বাংলা বা দেশে করোনায় আর কোনও মৃত্যু হোক আমরা চাই না। কিন্তু, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশ মেনেই সমস্ত শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হবে।

 1,053 total views,  4 views today

Leave a Reply