বিশ্ব

অন্তর্বাস পরেই করোনা রোগীদের সেবা করছেন নার্স

পিপিই কিট নিয়ে এমনিতেই প্রচুর বিতর্ক হচ্ছে। বিশ্বের প্রায় সমস্ত দেশেই চিকিৎসকরা পর্যাপ্ত পিপিই কিট পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন। এমন অবস্থায় এক নার্স আরও একবার পিপিই কিটকে নিয়ে অন্য বিতর্কে জড়ালেন।

এবার নার্সের পিপি দেখে চক্ষু চড়কগাছ হসপিটালের রোগীদের। যদিও কেউ কিছু অভিযোগ না করেই উপভোগ করলেন সেই দৃশ্য। নার্সের শরীরে ট্রান্সপ্যারেন্ট পিপিই কিট—এর ভিতর অন্তর্বাস দেখা যাচ্ছে স্পষ্ট।  এই স্বচ্ছ পিপিই কিটের ভেতরে অন্তর্বাস পরে কাজে যোগ দেওয়াতে বিতর্কে জড়ালেন রাশিয়ার এক হাসপাতালের নার্স।

ওই নার্স রাশিয়ার তুলা হাসপাতালে কর্মরত। তিনি ওইভাবেই হাসপাতালের মেল ওয়ার্ডে গিয়ে কাজ করছিলেন। কিন্তু সেখানে থাকা কোন রোগী ওই নার্সের ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করলে তা দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। তবে এই বিষয় নিয়ে এখনও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে কোন মন্তব্য করা হয়নি। তবে ইতিমধ্যে অইভাবে তিনি কে কাজে যো দিলে তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। তবে ওই নার্স জানিয়েছিলেন অত্যাধিক গরম লাগার কারণেই তিনি ওভাবে পিপিই কিট পরে কাজে যোগ দিয়েছিলেন। তিনি এও জানিয়েছিলেন যে তিনি বুঝতে পারেননি ওই পিপিই কিট এতটাই স্বচ্ছ যে তাঁর অন্তর্বাস বোঝা যাবে। কিন্তু তিনি কাজে এতটাই ব্যস্ত ছিলেন সেদিকে খেয়াল করেননি।

এদিকে এমন কাণ্ডের পর ওই নার্সকে শাস্তি দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতাল প্রধান জানায় , প্রয়োজনীয় মেডিক্যাল পোশাক না পরায় তাকে শাস্তি দেয়া হয়েছে । স্থানীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ওই নারী নার্সের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে এই শাস্তির বিরোধিতা করেছে রোগীরা। তাদের দাবী করোনার সময় এমনি মানসিকভাবে তারা ভেঙে পড়েছিলেন। এই ঘটনায় তারা কিছুটা হলেও মনে আনন্দ পেয়েছেন।

 2,020 total views,  22 views today

Leave a Reply