জেলা

বুদবুদে বাংলাদেশের আত্মীয়দের নামে ১৫টি ভুয়ো কার্ড তৈরি করে রেশন তোলার অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে

বুদবুদ থানার সুকান্তনগর এলাকায় বাংলাদেশে বসবাসকারী আত্মীয়দের নামে ভুয়ো কার্ড তৈরি করে দীর্ঘদিন রেশন সামগ্রী তোলা হচ্ছে। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। স্থানীয় তৃণমূল নেতারা অভিযুক্ত বিজেপি নেতার শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভে শামিল হন। এনিয়ে এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে বিডিওর কাছে লিখিত অভিযোগ জানান।

তৃণমূলের অভিযোগ,ওই বিজেপি নেতা নিজের পরিবারের চারজন সদস্য সহ মোট ১৯ টি রেশন কার্ডে দীর্ঘদিন ধরে রেশন সামগ্রী নিচ্ছেন। যার মধ্যে ১৫টি রেশন কার্ডের গ্রাহকরা বাংলাদেশে বসবাস করেন। যদিও বিজেপি নেতৃত্ব অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তাদের দাবি, তৃণমূল রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে ওই নেতাকে ফাঁসাতে চাইছে।

জানা গিয়েছে, বুদবুদের ৫ নম্বর রেশন দোকানে এদিন সকালে অভিযুক্ত বিজেপি নেতা স্বপন সরকার ১৯ টি রেশন কার্ড নিয়ে খাদ্যসামগ্রী নিতে আসেন। সেই সময় রেশন দোকান পরিদর্শনে যান তৃণমূল নেতা দোলন দত্ত। একসঙ্গে একাধিক রেশন কার্ডে বিজেপি নেতাকে রেশন নিতে দেখে সন্দেহ হয় তাঁর। বিষয়টি জিজ্ঞাসাবাদ করতেই বিজেপি নেতা জানান, তাঁর পরিবারের চারজন সদস্যের চারটি রেশন কার্ড রয়েছে। বাকি ১৫টি রেশন কার্ড আত্মীয়দের। তাঁরা বর্তমানে বাংলাদেশে রয়েছেন। বিষয়টি জানাজানি হতেই তৃণমূল নেতাকর্মী সহ স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁর শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। রেশন কার্ডগুলি তদন্তের স্বার্থে নিয়ে নেন তৃণমূল নেতারা। পুলিস এসে অভিযুক্ত স্বপন সরকারকে আটক করে নিয়ে যায়। এদিন বিকেল পর্যন্ত এই দাবিতে তৃণমূল ও স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।

 233 total views,  4 views today

Leave a Reply