সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে বন্যপ্রাণীদের ভুয়ো ভিডিও। এই হিড়িক দেখে রীতিমতো উদ্বিগ্ন বনদপ্তরের কর্তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরনের গুজব রুখতে এবার কড়া আইন প্রণয়নের কথা ভাবতে শুরু করেছেন বন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। পরপর ঘটে চলা এই ধরনের একাধিক ঘটনা বিশ্লেষণ করে বনদপ্তরের পর্যবেক্ষণ, এই ধরণের ঘটনা সামাল দিতে গিয়ে একদিকে নাকাল হতে হচ্ছে বনদপ্তরের কর্তাদের। এমনকী এর প্রভাব পড়ছে দৈনন্দিন কাজেও। একইভাবে যেখানে-সেখানে বন্যপ্রাণীদের দেখা মেলার গুজব ছড়িয়ে পড়ায় চরম আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হতে শুরু করেছে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় ।কোথাও কোথাও পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে আক্রান্ত হতে হচ্ছে বনকর্মীদের।

তাই বিষয়টিকে হালকাভাবে না নিয়ে এর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার ভাবনা রয়েছে বনদপ্তরের। বনদপ্তর এর আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, এমনিতেই বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জঙ্গলে নানা ধরনের বন্য প্রাণীদের সামাল দিতে দিনভর হিমশিম খেতে হয় কর্তাদের। এছাড়াও চা বাগানগুলিতে লেপার্ড ও হাতির হামলার ঘটনা রোজগার হচ্ছে। তার মধ্যে বাঘের মতো স্পর্শকাতর বন্য প্রাণীকে নিয়ে যেভাবে গুজব ছড়ানো হচ্ছে, তা অত্যন্ত অনভিপ্রেত ঘটনা বলেই মনে করছেন তারা। এই কাজ করার আগে সমাজের সমস্ত শ্রেণীর মানুষকে আরও বেশি দায়িত্বশীল হয়ে উঠতে হবে। এরপর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া তাদের আর কোনও পথ খোলা থাকবে না বলেই মনে করছেন বনদপ্তরের কর্তা। তাই খুব ভিডিও বন্ধ করতে করার আইন আনার বিষয়ে ইতিমধ্যেই বিভাগীয় স্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছেন দপ্তরের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

 155 total views,  2 views today