রাজনীতিতে দাগী অপরাধীদের রুখতে এবার সক্রিয় হল সুপ্রিম কোর্ট। দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দলের উদ্দেশ্যে এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। তাতে বলা হয়েছে, দলীয় প্রার্থীদের ফৌজদারি অপরাধের তালিকা বিস্তারিতভাবে প্রকাশ করতে হবে ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাশাপাশি ফৌজদারি মামলা থাকা ব্যক্তিদের কেন ভোটে টিকিট দেওয়া হচ্ছে, তার ব্যাখ্যা দিতে হবে রাজনৈতিক দলগুলিকে। ফৌজদারি মামলা রয়েছে এমন কোনও ব্যক্তিকে প্রার্থী করার ক্ষেত্রে তার জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা একমাত্র মানদণ্ড হতে পারে না। যোগ্যতা, গুণাগুণ ও অপরাধের বিচার করেই দলগুলিকে প্রার্থী বাছাই করতে হবে।

প্রসঙ্গত বিগত বেশ কয়েকটি নির্বাচনে দেখা গিয়েছে দাগি প্রার্থীদের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন শীর্ষ আদালত। সবদিক বিচার করেই বৃহস্পতিবার শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, দাগি প্রার্থীদের অপরাধের রেকর্ড ফেসবুক-টুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়া এবং স্থানীয় ও সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করতে হবে। প্রার্থী নির্বাচনের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেই সব তথ্য জানাতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। এই নির্দেশের অন্যথা হলে ওই দলের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ জানাতে পারবে কমিশন। দাগি প্রার্থীদের ভোটে দাঁড়ানো ঠেকাতে নতুন আইন আনার পরিকল্পনা করছে সুপ্রিম কোর্ট।

 68 total views,  2 views today