রাজ্য

আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত কলকাতায় ৬ শহরের বিমানে ফের নিষেধাজ্ঞা

বাংলায় ক্রমশ বাড়ছে করোনার দাপট। করোনা সংক্রমণে শীর্ষে রয়েছে কলকাতা। এই পরিস্থিতিতে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাই, পুনে, নাগপুর ও আমেদাবাদ থেকে কোনও যাত্রীবাহী বিমান ঢুকবে না কলকাতায়। এই ৬টি শহরের সঙ্গে কলকাতার বিমান চলাচল আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান সচিব পি এস খারোলাকে চিঠি দিয়ে শুক্রবার তা স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা। রাজ্য সরকারের বক্তব্য, যে হেতু দিল্লি, পুণে, নাগপুর, মুম্বই, আমদাবাদ এবং চেন্নাইতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি এবং উত্তরোত্তর বাড়ছে। তাই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে এই ৬ শহর থেকে পশ্চিমবঙ্গে কোনও যাত্রীবিমান অবতরণের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। তা ৩১ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত রাখা হচ্ছে। উল্লেখ্য, এর আগে, এই নির্দেশিকা বহাল ছিল ৬ থেকে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে। সেই সময়সীমার মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ জুলাই পর্যন্ত করা হল।

প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক দিন ধরেই বলছিলেন যে, কয়েকটি শহর থেকে যদি কলকাতায় বিমান না আসে তাহলে ভাল হয়। কয়েক সপ্তাহ আগেই একটি ঘটনা ঘটেছিল। চেন্নাই থেকে দু’জন করোনা পজিটিভ রোগী দিব্যি প্লেনে চেপে কলকাতায় এসে নামেন। তাঁরা মেদিনীপুরের বাসিন্দা। তারপর পাঁশকুড়ার বড় মা হাসপাতালে গিয়ে বলেন তাঁরা পজিটিভ। তাঁদের শরীরে সংক্রমণ আছে জেনেও তাঁরা ফেরায় ক্ষোভ শোনা গিয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীর গলায়। তা ছাড়া বিমানবন্দরের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয় পেরিয়ে তাঁরা কী করে এলেন তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। এর পরই ৬ টি শহর থেকে কলকাতার জন্য উড়ান বন্ধ রাখা হয়।

 251 total views,  1 views today

Leave a Reply